Dhaka    Tuesday, 15 June 2021

By সজীব সরকার

ডেটা জার্নালিজম

Media School April 9, 2021

ডেটা বা পরিসংখ্যান ব্যবহার করলে খবরটি তথ্যবহুল ও সহজবোধ্য হয়। ছবি : infogram.com

পাঠকের কাছে খবর তুলে ধরা একটি কঠিন কাজ। পাঠকের ধরনে যেমন ভিন্নতা রয়েছে, তেমনি তাদের খবর পাঠের রুচিও ভিন্ন। আবার বয়স কিংবা শিক্ষাগত যোগ্যতার ভিত্তিতে পাঠকের খবর বুঝবার ক্ষমতাতেও সাধারণত তারতম্য থাকে। আর এখনকার দিনে খবরের সংখ্যা যেমন বেড়েছে, তেমনি আবার বেড়েছে পাঠকের দৈনন্দিন ব্যস্ততাও। এসব বিষয় বিবেচনায় পর্যাপ্ত খবর দিয়ে পাঠকের চাহিদা মেটানো এবং পাঠককে সন্তুষ্ট করা বেশ দুঃসাধ্য ব্যাপার হয়ে উঠেছে।

পরিবর্তিত এই পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে গণমাধ্যমগুলো প্রতিনিয়ত খবরের বিষয়ে বৈচিত্র্য আনার চেষ্টা করছে। পত্রিকাগুলো পৃষ্ঠাসজ্জায় বাড়তি মনোযোগ দিচ্ছে। সম্প্রচার মাধ্যমগুলো নতুন নতুন প্রযুক্তির ব্যবহারে খবরকে অধিকতর আকর্ষণীয় করে তোলায় ব্যস্ত।

পাঠককে সন্তুষ্ট করার এই আয়োজনের মধ্যে সাংবাদিকতায় একটি অপেক্ষাকৃত নতুন ধারণা হলো ডেটা জার্নালিজম (Data Journalism)। সহজ করে বলা চলে, প্রাসঙ্গিক তথ্য বা পরিসংখ্যান ব্যবহারের মাধ্যমে খবরকে একইসঙ্গে তথ্যবহুল ও বিশ্লেষণী করে তোলার চর্চাই হলো ডেটা জার্নালিজম।

নির্বিচারে কেবল টেক্সট ব্যবহারের মাধ্যমে খবর তুলে না ধরে ডেটা বা পরিসংখ্যান ব্যবহার করলে খবরটি তথ্যবহুল হয়। ডেটা ব্যবহার করতে গিয়ে অনেক সময় একটি বিষয় সম্পর্কে অজানা পুরোনো তথ্য যেমন বেরিয়ে আসে, তেমনি আবার বিষয়টির বর্তমান প্রবণতা বা এ সম্পর্কে অদূর ভবিষ্যতে কী ঘটতে পারে, সে সম্পর্কেও আভাস পাওয়া যায়। এতে একটি খবর সাদামাটা খবরের চেয়ে অনেক বেশি কার্যকর হয়ে ওঠে।

এছাড়া ডেটা বা পরিসংখ্যান উপস্থাপন ও তা বিশ্লেষণের মাধ্যমে খবর তুলে ধরলে পাঠক খুব সহজে তা বুঝতে পারে। আর পরিসংখ্যানের নান্দনিক উপস্থাপন পত্রিকার পাতা বা টিভির পর্দায় বৈচিত্র্য ও বাড়তি আকর্ষণ যোগ করে। ব্যস্ত পাঠক অনেক সময় পুরো খবর না পড়ে কেবল উপস্থাপিত পরিসংখ্যানে চোখ বুলিয়েও একটি বিষয় সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণাটুকু নিতে পারে।

বাংলাদেশে ডেটা জার্নালিজমের ধারণা ও চর্চা কিছুটা নতুন হলেও বিশ্বের অন্য অনেক দেশে আরো আগে থেকেই এর চর্চা রয়েছে।